রিয়াদ / নভেম্বর 18, 2018

নেপালের খাবার এবং শপিং টিপস

শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে

দেশের বাইরে গেলে অনেকেই খাবার-দাবার নিয়ে ঝামেলা পড়ে যায়। খাবার আইটেম, দাম, ভেজ, নন-ভেজ, আবার হালাল-হারাম। আসুন জেনে নিই নেপালি খাওয়া দাওয়া সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য।

নেপালি খাওয়া দাওয়া অজানা তথ্যঃ

  • নেপালে আপনি ভাত পাবেন খুব সহজে কিন্তু মাছ পাবেন না ফেলেও টুনা মাছ পেতে পারেন তাও কম। চিকেন পাবেন খুব বেশি যা ভাতের সাথে চিকেন কমন একটা খাবার আর একটু খুজলে গরুর মাংসও পেতে পারেন।
  • চিকেন সহ ভাত পাবেন রেস্টুরেন্ট ভেদে ২০০ থেকে ৩৫০ রূপি। সাথে থাকবে ভাত, চিকেন, সালাত, ডাল, শাক, সবজি আর পানি।

নোটঃ চিকেন ব্যাপারে একটু প্রবলেম আছে ওরা শুকুর আর চিকেন এক তেল এক পাতিলে রান্না করে কিন্তু খাবেন কিনা সেটা আপনার বিষয়। প্রয়োজন বোধে যাচাই বাচাই করে খেতে পারেন।

  • ভেজ খাবার পাবেন রেস্টুরেন্ট ভেদে ১২০-২০০ রূপি। সাথে দিবে ভাত, শাক, সবজি, ভাজি, ডাল, চাটনি, সালাত আর পানি।
  • নেপালে শহর গুলোতে ভালো মানের ফাস্টফুড কর্নার আছে, খাবার মান অনেক ভাল। বার্গার, স্যান্ডুইচ, হট-ডগ, পিজা খেতে পারেন দাম স্বাভাবিক আছে তবে বরাবরই মাংসতে সেম প্রবলেম।
  • কোক, পেপসি, ডিউ সহ সকল ড্রিংকস এর দাম আকাশ ছোঁয়া।
নেপালি থালি
ছবিঃ নেপালি থালি

নেপাল অনেক ইন্ডিয়ান খাবার পাবেন রেস্টুরেন্ট গিয়ে বললে হবে। যদি রুমে রান্না করার ব্যবস্থা থাকে তাহলে অনেক শপ পাবেন কেনাকাটা করার জন্য।

নেপালে ১ লিটার পানির দাম ২০ রুপি। কিন্তু অধিকাংশ জায়গাতেই ২৫ রুপিতে বিক্রি করে। পাহাড়ের উপর ৪৫ থেকে ৫০ রুপি। আল মদিনা হোটেলের পাশে ১টি মুদি দোকান পাবেন। সেখানে ২০ রুপিই রাখে এবং ৩ টি পানি কিনলে ১টি পানি ফ্রী দেয়।

নোট পয়েন্টঃ

সারাংকোট এবং নাগারকোট এ হালাল খাবার পাওয়া যায় না। ভেজিটেবল দিয়ে জীবন পার করতে হবে। দুধ চা বা দুগ্ধজাত কোন খাবারে মহিষের দুধ বেশি ব্যবহার করা হয় ট্রাই করে দেখতে পারেন আশা করি ভাল লাগবে। আর যারা নেপালের গিয়ে “হালাল ফুড” খুজেন তাদের জন্য কয়েকটি হালাল ফুডের দোকানের নাম এবং লোকেশন দিয়ে দিলাম নোট করে রাখতে পারেন।

থামেল/কাঠমান্ডুঃ হালাল খাবার খুঁজছেন চলে যান “আল-মদিনা হালাল ফুড” হোটেল যে কাউকে বললে দেখিয়ে দিবে। গুগল ম্যাপ কো-অর্ডিনেট এখানে দিয়ে দিলাম (https://goo.gl/maps/7NmY5dB2Fry)। এখানের খাবার খরচ নিম্নরূপঃ- ভাত ফুল ১৬০ রুপি; হাফ ৮০ রুপি (১টি ফুল এবং ১টি হাফ নিলে দুজন খেতে পারবেন); মুরগী / মহিষ কারি ফুল ২৬০ রুপি; হাফ ১৩০ রুপি (প্রত্যেক হাফ এ ২টি বড় মুরগীর পিস থাকে); ডাল ফুল ১৪০ রুপি; হাফ ৭০ রুপি (১টি হাফ ২ জনের জন্য যথেষ্ট); আলু-ফুলকপি সবজি ফুল ১৬০ রুপি; হাফ ৮০ রুপি (১টি হাফ ২/৩ জনের জন্য যথেষ্ট।

পোখারাঃ পোখারাতে মুসলিম হোটেল বা হালাল খাবার বলেতে “পোখারা হালাল ফুড ল্যান্ড” খেতে পারেন পাকিস্থানি একটা হোটেল। গুগল ম্যাপ কো-অর্ডিনেট এখানে দিয়ে দিলাম (https://goo.gl/maps/xVNHdda4poz)। দোকানটি মার্কেটের ভিতরে। এখানের খাবার খরচ নিম্নরূপঃ  মুরগী/মহিষ, ডাল ও ভাত প্যাকেজ জনপ্রতি ৩০০ রুপি (এক্সট্রা ভাত নিতে পারবেন)।

নেপালে শপিং প্রসঙ্গেঃ

থামেল বা পোখারা যেখানে বলেন ভুরে ভুরে দোকান আছে, এখানেও কিনতে পারেন, তবে নিচের ২টি বাজার লোকালদের বাজার তাই তুলনামূলক সস্তায় পাবেন অন্ততপক্ষে কিছু না নিলেও একবার ঘুরে আসার দরকার।

  • থামেল “মঙ্গলবাজার”
  • পোখারাতে “হংকং মার্কেট”

কিভাবে যাবেন চিন্তা করার কোন কারণ নেই যে কাউকে বললে দেখি দিবে আর গুগল ম্যাপ আর সাইকেল ভাড়াও করেও যেতে পারেন।

নেপাল শপিং
ছবিঃ নেপাল শপিং

নোটঃ শপিং এর জন্য ঐখানে জামা, শো-পিচ, ম্যাপ, চকলেট, অর্নামেন্টস ইত্যাদি ভাল পাবেন। শপিং করার ইচ্ছা থাকলে ট্রিপের শেষের দিকে শপিং করার ট্রাই করুন। নেপালিরা সাধারণত একটি জিনিস মূল্য ২-৩ গুণ বলে থাকে আপনাকে কনফিউজড করার জন্য সুতারাং এদিকে খেয়াল রাখবেন।

 

আমাদের নেপাল ভ্রমণ গাইড সিরিজ পোস্ট এর লিঙ্কঃ

(Visited 1,265 times, 12 visits today)


শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে

FILED UNDER :ভ্রমণ