Natural mouth freshener

nuzhatsaif / সেপ্টেম্বর 7, 2020

প্রাকৃতিক মাউথ ফ্রেসনার

শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে

শুষ্ক মুখ, মুখের ক্ষত, ধূমপান বা মাড়ির রোগ থাকলে দাঁতে ও জিহবায় ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। নিঃশ্বাসের সাথে মুখে দুর্গন্ধ হয় এই ব্যাকটেরিয়া কারণে। পড়তে হয় অস্বস্তিকর অবস্থায়। মাউথ ওয়াশ ব্যবহারে অনেকের মুখ জ্বলতে পারে কিংবা অনেকের মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করার অভ্যেস নেই,সেক্ষেত্রে ভেষজ বা প্রাকৃতিক কিছু উপাদান রয়েছে যেগুলো মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে এবং দাঁত সাদা করতে সাহায্য করে।

তো চলুন জেনে নেই এমন কিছু প্রাকৃতিক উপাদান সম্পর্কে যেগুলো আপনার মুখের দুর্গন্ধ দূর করবে এবং মাউথ ফ্রেসনার হিসেবে কাজ করবে।

  • একটি বাটিতে কিছু পরিমাণ টুথপেস্ট নিয়ে খুব সামান্য বেকিং সোডা ও কয়েকফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ দিয়ে ব্রাশ করলে মুখের গন্ধ দূর হবে এবং এটি দাঁত সাদা করতেও সাহায্য করবে। তবে রেগুলার এই মিশ্রণ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করা যাবেনা। বেকিং সোডা রেগুলার ইউজ করলে দাঁত ক্ষয় হতে পারে । সপ্তাহে দুইদিন এই মিশ্রন ব্যবহার করলেই ভালো ফল পাবেন।

 

  • হাইড্রোজেন সালফাইডের কারণে মুখে দুর্গন্ধ তৈরী করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে টকদই খেলে এই পদার্থটি পরিমাণে  কম উৎপন্ন হয়। তাই প্রতিদিন টকদই খেলে তা মুখের দুর্গন্ধ কমাতে সাহায্য করে। এছাড়া টকদই মুখে খারাপ ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে দেয় না ফলে মাড়ির রোগ নিয়ন্ত্রণে থাকে। 

 

  • মুখ পরিষ্কার রাখতে এবং মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে প্রতিদিন মৌরি চা খেতে পারেন। এককাপ গরম পানিতে একচামচ মৌরি দিয়ে দিনে দুইবার খান। মৌরি মুখে স্যালিভা বেশি পরিমাণে উৎপন্ন করে এবং এসিড রিফ্লাক্স কমায়। মৌরিতে থাকে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা মুখের দুর্গন্ধ দুর করে। 

 

  • এককাপ পানিতে একচামচ দারুচিনি গুড়ো দিয়ে ভালোভাবে ফুটিয়ে নিন। এই পানি দিয়ে কুলকুচি করুন। শুকনো দারুচিনি চাবালেও নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ দূর হবে। দারুচিনিতে রয়েছে সিনামিক অ্যাল্ডিহাইড নামক তেল, এটি মুখে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে বাঁধা দেয়,ফলে দুর্গন্ধ দূর হয়।

 

  • দুই চা চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার, এককাপ লবনজল ও অল্প পরিমাণ ভ্যানিলা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে একটি বোতলে রাখুন। মুখে এই মিশ্রন স্প্রে করে বা কুলি করে মুখ পরিষ্কার করতে পারেন। সবগুলো উপকরণ কাছে না থাকলে হালকা গরম পানিতে অল্প লবন মিশিয়ে গার্গল করলেও মুখের দুর্গন্ধ দূর হবে। 

 

  • ব্রাশ করার সময় পেস্টের ওপর অল্প পরিমাণ দারুচিনি গুড়ো আর লবন ছিটিয়ে নিন। দাঁতের সাথে জ্বিহ্বাও ভালোভাবে পরিষ্কার করুন।  টাং স্ক্র্যাপারযুক্ত টুথব্রাশ ব্যবহার অথবা চামচের উল্টোপিঠ দিয়ে জ্বিহ্বা পরিষ্কার করা কার্যকর।

 

  • পেঁয়াজ বা রসুনের মতো শক্তিশালী গন্ধযুক্ত খাবার নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে। এই দুর্গন্ধ দূর করতে কুড়কুড়ে খাবার ফল খেতে পারেন। সাধারণত শসা, গাজর, আপেলের মতো ফল গন্ধ দূর করতে পারে। । কয়েকটুকরো লবঙ্গ মুখে নিয়ে চাবালেও পেঁয়াজ রসুনের গন্ধ দুর হয়।

 

  • বাসায় থাকা কয়েকটি উপাদান দিয়ে তৈরী করতে পারেন প্রাকৃতিক মাউথ ফ্রেসনার। একটি পাত্রে দুইকাপ পানি ফুটিয়ে তাতে তিন-চারটি এলাচ, দুইটি তেজপাতা ও একচামচ দারুচিনি গুড়ো মিশিয়ে নিন। মিশ্রনটির রং বাদামি হয়ে এলে চুলোর আঁচ কমিয়ে দিয়ে মিশ্রনে অর্ধেক চামচ লবন দিন। এই মিশ্রনটি কাঁচের পাত্রে সংরক্ষণ করে মাউথ ফ্রেসনার হিসেবে ব্যাবহার করতে পারেন। 

 

  • বেশিরভাগ মাউথ ফ্রেসনার তৈরীতে পুঁদিনা ও মেথি ব্যবহার হয়। এদের শীতলিকারক গুণ রয়েছে। মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে কয়েকটি কাঁচা পুদিনা পাতা চাবান অথবা পুদিনা চা/ মেথি চা পান করুন। ইনফ্লুয়েঞ্জা অথবা ঠান্ডা লাগার কারণে মুখে যে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয় তা দূর হবে এই চা পান করলে।

আজ এ পর্যন্তই। ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন।

(Visited 84 times, 1 visits today)


শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে