মরক্কান বাগরির রেসিপি

মাহবুবা হক / জুন 15, 2020

মরক্কান বাগরির রেসিপি- তিনদিন পর্যন্ত রেখে খেতে পারবেন

শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মরক্কান বাগরির রেসিপি চেয়েছেন অনেকে।  মরক্বান বাগরিকে বলা হয় হাজার ছিদ্রের প্যান কেক। কিন্তু বাগরি প্যান কেন থেকেও অনেক লোভনীয় একটি খাবার।এর অন্যরকম এক টেক্সচার রয়েছে। নরম তুলতুলে খেতে এটি। ঝাল কিংবা মিস্তি সব ধরের খাবারের সাথে একে আপনি সার্ভ করতে পারেন। অনেকটা আমাদের দেশের চিতই পিঠার মত এর চেহারা। কিন্তু চিতই পিঠা করা হয় চালার গুঁড়া দিয়ে, আর মরক্কান বাগরি করা করা হয় স্যামোলিনা অথবা সুজি দিয়ে।

বানানোর পর অনেক সময় ধরে এটি নরম থাকে, সাধারণ চিটই পিঠার মত শক্ত হয়ে যায়না। আপনি তোয়ালে দিয়ে ঢেকে রেখে একে তিন চারদিন পর্যন্ত সংরক্ষন করতে পারবেন সাধারণ তাপমাত্রায়।

ইস্টের ব্যাবহার হওয়ায় এ্রর ব্যাটার যখন প্যানে দেয়া হয় তখন অনেক গুল বুদবুদ তৈরি হয়। সাধারণ প্যান কেন থেকে আলাদা করে তুলে এই জালিজালি ছিদ্র গুলো।এই ছিদ্রগুলোর উপর যখন কোন টপিং অথবা সিরাপ দেয়া হয় খুব দ্রুত তা শুষে নেয়। এই বৈশিষ্টের কারনে এটি খুব সুপার ইয়াম্মি খাবারে পরিণত হয়।
আপনি ঘরে বানয়ে দেখুন এ মরক্কান বাগরির রেসিপি অনুযায়ী, এর প্রেমে পড়ে যাবেন নিশ্চিত।

মরক্কান বাগরির রেসিপি

যা লাগবে-

১- ময়দা ৩ কাপ বা ৩৩০ গ্রাম।

২-সুজি ৩ কাপ বা ৩৩০ গ্রাম।

৩- চিনি ২ টেবিল চামচ ।

৪- লবণ ২ চা চামচ

৫- বেকিং পাউডার ২ চা চামচ বা ১০ গ্রাম।

৬- ইস্ট ৪ চা চামচ বা ২০গ্রাম।

৭-  উষ্ণ  গরম পানি তবে খুব বেশী গরম নয় সাড়ে ৯ কাপ

মরক্কান বাগরির রেসিপি

মরক্কান বাগরির রেসিপি বা বানানোর পদ্ধতি

১- প্রথমে পানি বাদে সকল উপকরণ ভালো ভাবে একটি বোলে মিশিয়ে নিতে হবে।

২-অল্প অল্প করে ঐ মিশ্রণে উষ্ণ পানি ঢেলে মিশ্রণকে নরম থকথকে করে নিতে হবে।

৩- মেশিন থাকলে ৩০ সেকেন্ড ঐ মিশ্রণ ব্লেন্ড করে নিন। না থাকলে কাঠের  চামচ বা অন্য কিছু দিয়ে ভালো ভাবে ঘুটে মসৃণ করে নিন। মনে রাখবেন এই মিশ্রণ পানির মত পাতলা যেন না হয় আবার যেন ঘনও না হয়। ঠিক চিতই পিঠার বেটারের মতো হবে।

৪- পরিষ্কার টাওয়াল দিয়ে ঢেকে গরম কোন স্থানে ২০ থেকে ৩০ মিনিট রেস্টে রাখুন।

 

৫- ২০ /৩০ মিনিট পর লক্ষ্য করুন যে ঐ মিশ্রণের উপর বুদবুদ দেখা যায় কিনা? যদি বুদবুদ দেখা যায় তাহলে বুঝতে হবে আপনার মিশ্রণ ঠিক হয়েছে। যদি বুদ বুদ না হয় তাহলে আরো অল্প পানি মিশিয়ে নিন এবং অপেক্ষা করুন। বুদবুদ আসা পর্যন্ত।

৬- এবার চুলার মধ্যে মৃদু তাপে ননস্টিক ফ্রাই প্যান গরম করুন।

৭- গরম হলে গোল চামচ দিয়ে এক চামচ মিশ্রণ ননস্টিক প্যানের মধ্যখানে গোল করে ছড়িয়ে দিন। ঢাকনা দিতে হবেনা।

৮- কয়েক মিনিট অপেক্ষা করুন। যখন দেখবেন পিঠার মধ্যে অসংখ্য ছিদ্র দেখা যাচ্ছে এবং কাচা ভাব চলে গেছে তখন  আলতো করে ফ্রাইপ্যান থেকে নামিয়ে নিন।

মরক্কান বাগরির রেসিপি

 

৯- নামিয়ে নিয়ে পরিষ্কার টাওয়ালের মধ্যে একটি একটি করে রাখুন। গরম অবস্থায় একটির উপর আরেকটি রাখবেন না। ঠাণ্ডা হবার পর একটির উপরে আরেকটি রাখতে পারবেন।

১০- এবার ফ্রাই প্যানকে উলটো করে ট্যাপের ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন।

এর পর ৭ নং নির্দেশের মত করতে থাকুন।

এই গুলো ঘরে রেখে তিন দিন পর্যন্ত খাওয়া যাবে।

সকাল বিকালের নাস্তায় চায়ের সাথে খেতে পারেন। গরম থাকা অবস্থায় বাটার (মাখন) লাগিয়ে বা বাটার মধু লাগিয়ে খেতে পারেন। ঠাণ্ডা হলে শুধু মধু বা জালিগুড় মিশিয়ে খেতে পারবেন।

মরক্কান বাগরির রেসিপি

আবার রান্না করা মাংসের তরকারী দিয়েও খেতে পারবেন। আবার জ্যাম জেলি বা কন্ডেন্সড মিল্ক দিয়ে বা কাঁচামরিচ/পুদিনাপাতার চাটনি দিয়েও খেতে পারবেন।

গরম গরম নেহারির সাথেও বেশ যায় এই খাবার। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে এই মরক্কান বাগরির রেসিপি। বানিয়ে দেখুন একবার এবং কেমন লেগেছে তা কমেন্টে জানান।

(Visited 116 times, 7 visits today)


শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •