pujadhar / সেপ্টেম্বর 22, 2020

বিবাহবার্ষিকীর জন্য চমৎকার কিছু উপহারের আইডিয়া

শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে

প্রত্যেক দম্পতির জন্য তাদের বিবাহবার্ষিকীর দিনটি অন্য দিনগুলোর চেয়ে একটু আলাদা হয়। বিবাহবার্ষিকী নতুন করে মনে করে দেয় তাদের একসাথে পথচলা শুরুর গল্পটি। এই গল্পে থাকে অনেক সুখের স্মৃতি আবার কিছু কিছু মনোমালিন্য। কিন্তু দিনশেষে আবার শুরু হয় গল্পের নতুন কোন পর্ব। প্রত্যেকেই চায় বিবাহবার্ষিকীতে তাদের সঙ্গীকে বিশেষ কিছু উপহার দিতে যেন তার বিশেষ মানুষটির মুখে মিষ্টি হাসি দোল খেলে যায়। চলুন দেখে নেয়া যাক বিবাহবার্ষিকীতে দেওয়া যায় তেমন কিছু উপহার-

১. ফটোকেকঃ জন্মদিন হোক বা গায়ে হলুদ, কেক ছাড়া যেন সব অনুষ্ঠান গুলো প্রাণহীন মনে হয় আজকাল। বিবাহবার্ষিকীতেও তার ব্যতিক্রম নয়। বিশেষ দিনের কেকটাও হওয়া চাই স্পেশাল। এক্ষেত্রে, ফটোকেক হতে পারে সেলিব্রেশনের দারুণ এক মাধ্যম। উপহারের পাশাপাশি ফটোকেক আপনার বিবাহবার্ষিকী সেলিব্রেশনকে করে তুলবে আরো বর্ণিল।

২.”Together since ” প্রিন্টেড কাপল টি-শার্টঃ যে সাল বর্তমান রয়েছে সে সাল উল্লেখ করে ” together ” আর যে সাল থেকে পথচলা শুরু হয়েছে সে সাল উল্লেখ করে “since ” লেখা প্রিন্ট করা টি-শার্ট হতে পারে উভয়ের জন্য ইউনিক উপহার। তাছাড়া, “king” “queen ” লেখা থাকতে পারে।

৩. হার্টশেপ কসমেটিক হোল্ডিং বক্সঃ নিজেকে সুন্দরভাবে সাজাতে সবাই চায়। আর এর জন্য প্রয়োজন হয় অনেক কসমেটিকস এর। হার্টশেপ কসমেটিক হোল্ডিং বক্স উপহার দিয়ে আপনার সঙ্গীকে ইমপ্রেস করার সুযোগটা হাতছাড়া কেন করবেন?

৪.লাভজারঃ বিশেষ দিনে ভালোবাসার মানুষটিকে বিশেষ কিছু বলবেন বলে ভেবে রেখেছেন? আপনার মনের কথা গুলো চিরকুটে লিখে ভরে রাখুন লাভজারে।উপহার হিসেবে দিন আপনার প্রিয় মানুষটিকে। দেখবেন লজ্জামাখা একটি মিষ্টি হাসি অপেক্ষা করে আছে আপনার জন্য।

৫.মি.&মিসেস লেখা বালিশের কভারঃ নিজের বেডরুমকে সকলেই চাই মনের মতো করে সাজাতে। এই রুমের সাথে জড়িয়ে থাকে অনেক স্মৃতি। আপনার বিশেষ দিনে বিশেষ মানুষটির জন্য মনের কথা লেখা বালিশের কভার চুপটি করে বিছানায় রেখে আসুন। দেখবেন ভালোবাসার গাড়ি সুন্দরভাবেই চলছে।

৬.লাভ কুপনঃ আপনার অ্যানিভার্সেরিতে আপনার পথ চলার সঙ্গীর জন্য নিজ হাতে লেখা কুপন হতে পারে তারজন্য বিশেষ একটি উপহার। প্রত্যেক লাইনে সে বুঝে নেবে আপনি তার জন্য কতটা স্পেশাল।

৭.চাবি রিংঃ চাবি রিং সকলকেই ব্যবহার করতে হয়। হোক সেটা অফিসের কাজে না হয় বাড়ির আলমারি খোলার কাজে। দুজনের ছবি সমের চাবি রিং কিংবা বিশেষ কিছু লেখা চাবি রিং রাখতে পারেন আপনার উপহার তালিকায়।

৮. ফটো অ্যালবামঃ পুরনো স্মৃতি গুলো নতুন করে মনে করিয়ে দিতে ফটো অ্যালবামের জুড়ি মেলা ভার। পুরনো ছবি সম্বলিত ফটো অ্যালবাম আরেকটি বার মনে করিয়ে দেবে পুরনো দিন গুলোর কথা।

৯.এক্সপ্লোসন বক্সঃ অফিস থেকে ফিরে তাড়াহুড়ো করে বললেন বক্সটা একটু খুলে দাওতো। আমি ফ্রেশ হয়ে আসছি। তাকে কিছু বলার সুযোগ না দিয়েই আপনি রুম থেকে সরে গেলেন। বক্স খোলার পর যখন দেখবে   “Happy Anniversary ” লেখা আর সাথে তার অনেক ছবি , দেখবেন সে নিজেই কিছুক্ষণের জন্য তার হাসি থামাতে পারছেন না।

১০.Ballon LED 3D ইলুশন ল্যাম্পঃ রুমে এসে আপনি লাইট নিভিয়ে বসে আছেন। নিশ্চয় তিনি দেখতে আসবেন হঠাৎ লাইট কেন নিভিয়েছেন আপনি। এসে যখন দেখবে্ন তার বিছানার উপর একটা ছোট ল্যাম্প জ্বলছে আর তাতে লেখা আছে “Happy Anniversary ” তিনি কতখানি সারপ্রাইজড হয়েছেন সেটি তার চোখ মুখ বলে দেবে।

১১.হাতে আঁকা ছবিঃ
আজকালতো ছবি তোলা শুধু এক সেকেন্ডর ব্যাপার। সবার হাতে হাতেই যে স্মার্ট ফোন। স্মার্ট ফোনের ছবির যুগে শিল্পীর হাতে আঁকা ছবি হতে পারে আলাদা একটি উপহার। একজন মানুষ সাদা ক্যানভাসে মনের মতো করে রং তুলিকে সাথে নিয়ে আপনার প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তুলছে। ক্যামেরার ছবি এই অনুভূতি আপনাকে কখনোই দিতে পারবেনা। প্রিয়তম বা প্রিয়তমাকে বুঝিয়ে দিন আপনার জীবনে সে কতটা স্পেশাল।

১২.ফুল, চকলেট ও বইঃ
ফুল ভালোবাসেনা এমন লোক খুব কমই আছে। একগুচ্ছ লালা গোলাপ আর তার পছন্দের চকলেট হাতে বলুন ” happy Anniversary “। তিনি যদি বইপোকা হয় তবে কিন্তু উপহার লিস্টে বই যোগ করতে ভুলবেন না। নয়তো কপালে দুঃখ আছে!

(Visited 202 times, 9 visits today)


শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে